সোমবার, ২৬শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, ১০ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
সোমবার, ২৬শে অক্টোবর, ২০২০ ইং
ডামুড্যা উপজেলায় ফকির

আল-কোরআন টুকরো করে তাবিজ তৈরির অপরাধে মনির হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ

আল-কোরআন টুকরো করে তাবিজ তৈরির অপরাধে মনির হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ

আল-কোরআন টুকরো টুকরো করে ছিড়ে তাবিজ তৈরি করার অপরাধে শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলায় মনির হোসেন (৩৩) নামে এক ফকিরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সে উপজেলার সিড্যা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সিড্যা গ্রামের আমির হোসেন হাওলাদারের ছেলে। বেশ কয়েক বছর যাবত তিনি ফকির হিসেবে কুরআন শরীফ ছিড়ে সাধারণ মানুষকে তাবিজ তুমার দিয়ে ধোকা দিচ্ছে। গত ১০ অক্টোবর শনিবার ডামুড্যা থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মনির হোসেন কুরআন ছিড়ছেন এমন ছবি ভাইরাল হয়। মনিরের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি দাবি তাদের।

জেলা ওলামালীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আব্দুল কাদের বলেন, ভন্ড ফকির মনির কুরআনকে অবমাননা করেছে। সে কুফরি কালাম করে মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছে। আমরা কুলাঙ্গার মনিরের ফাঁসি চাই।

ডামুড্যা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী হাসান বলেন, আমরা ঘটনা শুনে তদন্ত যাই। মনিরের বিরুদ্ধে স্থানীয় জাহাঙ্গীর হাওলাদার বাদি হয়ে মামলা করে। পরে গ্রেফতার করে শরীয়তপুর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।