বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং, ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ই রজব, ১৪৪৪ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং

ডামুড্যায় প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ

ডামুড্যায় প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ

শরীয়তপুর ডামুড্যা উপজেলায় ধানকাটি ইউনিয়নে মোল্লাকান্দি এলাকায় আবু তাহের নামে এক দুবাই প্রবাসীর স্ত্রী ও তার মাকে মারধর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে তার আপন বড় দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ডামুড্যা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন প্রবাসীর স্ত্রী।

মামলার সুত্রে জানাযায়, ডামুড্যা উপজেলার ধানকাটি ইউনিয়নের মোল্লাকান্দি গ্রামের আবু তাহের বেপারীর স্ত্রী জায়েদা আক্তার গত ২৮ নভেম্বর দুবাই থেকে তার নিজ বাড়িতে আসে। আসার পর প্রবাসী আবু তাহের বড় দুই ভাই তার স্ত্রীকে ঘর থেকে বের হতে বলে। ভয়ে তিনি কেঁচি গ্যাট আটকিয়ে রাখে। সেই গ্যাট ভেঙ্গে তার স্ত্রী ও তার মাকে বের করার চেষ্টা করেন। তারা বের না হলে তার স্ত্রী জায়েদা ও তার মায়ের ওপর হামলা করেন তারা। এক পর্যায়ে প্রবাসীর স্ত্রী জায়েদা আক্তারের পেটে লাথি মারে এবং প্রাণে মারার হুমকি দেয়।

এ ঘটনা ঘটায় তার ভাই জহিরুল ইসলাম, রফিক বেপারীসহ তাদের দল। তারা তাদের দলবল নিয়ে ঘরে ঢুকে বাড়ি ঘর ভাংচুর করে ১০ ভরি স্বর্ণ, নগদ টাকাসহ প্রায় ১২ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। প্রবাসী আবু তাহেরর স্ত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। গুরুত্বর অসুস্থতা নিয়ে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে স্থানীয়রা করেন। বর্তমানে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন প্রবাসীর স্ত্রী ও তার মা। এ ঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী জায়েদা আক্তার ৭ জনকে আসামীকে মঙ্গলবার রাতে ডামুড্যায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আবু তাহেরের স্ত্রী জায়েদা আক্তার জানান, আমরা এলাকায় না থাকায় জহিরুল ইসলাম ও রফিক বেপারী আমাদের বাড়ি ঘর দখল করে। আমি বাড়িতে চলে আসলে তারা আমাকে ঘরে ঢুকতে না বলে ছিলো। আমি ঘরে তারা আমাকে মারার জন্য আসে। ভয়ে আমি ঘরের কেঁচিগ্যাট ও দরজা বন্ধ করে রাখি। তারা কেঁচিগ্যাট ও ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে আমাকে ও আমার শ্বাশুড়িকে মারধরে করে, বিদেশ থেকে যা নিয়ে এসেছিলাম সব কিছু নিয়ে গেছে।

ডামুড্যা থানার ওসি শেখ শরীফুল আলম বলেন, এবিষয় প্রবাসী স্ত্রী জায়েদা একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। প্রাথমিক ভাবে তদন্ত করে জানতে পারি তাদের বাড়ির বিল্ডিং ঘর নিয়ে বিরোধ। জায়েদার ভাসুর জহির বেপারী সাপল দিয়ে কুপিয়ে দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে জায়েদাকে ও তার মাকে মারধর করে। পরে ঘরে স্বর্ন অলঙ্কার লুটকরে করে নিয়ে যায়। আহত দুইজন শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে। মেডিক্যাল রিপোর্টে দেখে তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।


error: Content is protected !!