রবিবার, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং, ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা জমাদিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী
রবিবার, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

নড়িয়ার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের একজন যোগ্য ব্যাক্তিত্ব মো: মাছুম মীর

নড়িয়ার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের একজন যোগ্য ব্যাক্তিত্ব মো: মাছুম মীর

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের একজন যোগ্য ব্যাক্তিত্ব মোঃ মাছুম মীর। তিনি একজন অন্যতম সমাজ সেবক এবং দেশ দরদী। পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী ধর্মীয় পরিবেশে কঠোর সংযম এবং সহজ-সরল জীবন যাপনে অভ্যস্ত এক নিবেদিত প্রাণ। তার ভাষায় চমকপ্রদ এবং সাহসী নতুন পৃথিবী এবং দেশকে এগিয়ে নিতে তিনি ব্যাস্ত। তিনি তার মূল্যবান সময় অতিবাহিত করতে চান মানুষের প্রয়োজনে। আর তাই তিনি নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের সেবা বঞ্চিত মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিতে তিনি তার সাধ্য অনুযায়ী বিভিন্ন ভাবে অর্থ দান করেছেন বিভিন্ন মাদ্রাসা, মসজিদ, এতিমখানা এবং আরো অনেক প্রতিষ্ঠানে।

শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের কাঠহুগলী গ্রামের এক মুসলিম পরিবারে জন্ম তার। তার বাবার নাম (মৃত) সৈয়দ আবুল হাশেম, মাতার নাম (মৃত) মইরম বেগম। ছোট বেলা থেকেই অসহায় মানুষের কথা ভাবতেন তিনি। তাইতো তিনি এবার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী হিসেবে সকলের দোয়া এবং ভালোবাসা চেয়েছেন। যদি তাকে তার ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বাসী পছন্দ করেন তাহলেই তিনি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে জনগণকে সেবা করার জন্য মেম্বার প্রার্থী হবেন বলে জানান। বিশেষ করে মোঃ মাছুম মীর তার উপজেলার ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বাসীকে তার পরিবারের মতো মনে করে তাদের সুখে দুঃখে পাশে দাড়াতে চান। আর্থিক কষ্টে জর্জরিত অসহায় মানুষকে অর্থ দিয়ে এবং স্কুলগামি গরীব সন্তানদের লেখাপড়ার খরচ, অসহায়দের ফ্রী চিকিৎসা করানোসহ তার ওয়ার্ড বাসীকে বিভিন্ন ভাবে সেবা করার জন্য সুযোগ চান তিনি।

তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা বাংলাদেশের রত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার দেশকে দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন বিভিন্ন ভাবে মানুষের সেবা করে। এবং আমাদের নড়িয়া সখিপুরের গণমানুষের নেতা বাংলাদেশ সরকারের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম এমপি যেভাবে গরীব অসহায় মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবা করে যাচ্ছেন, তার দেখানো পথে থেকে আমি আমার ওয়ার্ড বাসীর সকল বিপদ আপদে পাশে থেকে কাজ করতে চাই। এছাড়াও তিনি বলেন, আমরা যারা সমাজে একটু ভালো অবস্থানে আছি আমরা যদি আমাদের সমাজের গরীব অসহায় মানুষের পাশে দাড়াই তাহলে সমাজে কোন অভাব এবং হাহাকার থাকবেনা বলে আমার বিশ্বাস। তাই আমি চাই অসহায় মানুষেরর পাশে দাড়ানোর পাশাপাশি দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমার ৬ নং ওয়ার্ডের জনগণের ভালোবাসা নিয়ে মেম্বার পদে নির্বাচন করবো। তিনি জানিয়েছেন বর্তমানে তিনি মানুষের কাছে গিয়ে দোয়া চাইছেন। তাছাড়া দেখা গেছে ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন রাস্তা, ঘাট, হাট-বাজারে তার আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী হিসেবে দোয়া চাওয়ার ব্যানার ফেস্টুনে ছড়িয়ে রয়েছে। এতে স্থানীয় লোকজনের মুখে তার আলোচনা শুরু হয়েছে।

কেউ কেউ বলছেন, তাদের বংশ পরিচয় ভালো, আশা করছি শেষ পর্যন্ত লেগে থাকলে ফলাফল ভালো হবে। তবে তিনি কস্ট প্রকাশ করে জানিয়েছেন যে, কে বা কাহারা তার ব্যানার ফেস্টুন গুলো ছিড়ে ফেলে তার সাথে শত্রুতা সৃষ্টি করতে চাইছে। তাই তিনি এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের সাহায্য কামনা করেছেন। এবং তিনি বলেন, ডিঙ্গামানিকের ৬ নং ওয়ার্ড আমার পরিবার, আমার বাবা মাকে আমি যেমন ভালোবাসি ঠিক তেমনি আমি আমার এই ওয়ার্ড এবং এখানকার মানুষকে আমি ঠিক তেমনি ভালোবাসি। আমি চাই আমার ওয়ার্ড কে সুন্দর করে সাজাতে, আমার ওয়ার্ডের মানুষ কে একটি সঠিক ও সুন্দর সাজানো গুছানো ডিজিটাল ওয়ার্ড উপহার দিতে। তাই আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৬ নং ওয়ার্ডের আমি একজন মেম্বার প্রার্থী হিসেবে সকলের নিকট দোয়া কামনা করছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন। জনগণের সাথেই আছি এবং জনগণকে পাশে নিয়েই কাজ করতে চাই।