রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ই সফর, ১৪৪২ হিজরী
রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

তোমার জন্য গান কবিতা লেখা

তোমার জন্য গান কবিতা লেখা

         তোমার জন্য গান কবিতা লেখা

                                    খান মেহেদী মিজান

তোমার জন্য কবিতা লিখতে বললে
বাংলাদেশের ইতিহাস লিখতে হয়,
তুমিতো স্বাধীনতা দিয়ে নাফেরার দেশে চললে
ঘাতকদের হাতে ইতিহাস বিকৃতির ভয়!

টুঙ্গীপাড়া মধূমতির তীরে ১৭মার্চ ১৯২০ সাল
পৃথিবীর আলোয় চোখ খুলে দেখলে ভাষা ও জাতিতে ভাগ,
জন্মেছিল ক্ষণজন্মা তুমি নৌকার ধরতে হাল
তর্জনী তুলে মুখ খুলে প্রথম দিয়েছিলে সাম্যের ডাক।

শৈশবে খোকা ডাকতো সবাই অনেক আদর করে
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি হবে আমাদের মুজিবও,
যার সাহসের কথা শুনে মনটা যেত ভরে
অধিকার ফিরে পেয়ে বঞ্চিতরা, বলেছিল তোমায় পুঁজিবো।

দেশ-জনতার অধিকার আদায়ে শৈশবে সংগ্রামে যায়
ধর্ম-বর্ণ-জাতি ভেদ ভুলে দুখীরে বুকে টেনে নিতো,
আশার বাণী পেতো সবাই তার প্রতিশ্রুতির বক্তৃতায়
নিজের সবকিছু উজাড় করে অভাবীদের দিয়ে দিতো।

ভাষা সংগ্রাম ’৫২ থেকে ৭১’র মুক্তি যুদ্ধে
জীবন বাজী রেখে অকুতোভয় তুমি মহানায়কের মত,
মায়েরভাষা ও স্বাধীনতা অর্জনে লড়েছো ওদের বিরুদ্ধে
স্বাধীনতা এনেছো, গুড়িয়ে দিয়েছো অপশক্তি যত।

পাকবাহিনী কারাগারে নিয়ে দেখিয়েছে মৃত্যু ভয়
চেয়েছো স্বাধীনদেশ মানুষের অধিকার মৃত্যুমুখে দাঁড়িয়ে,
দেশের স্বার্থে মৃত্যু হলেও তুমি মাথা নোয়াবার নয়
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি হয়ে গিয়েছো বিশ্ব ছাড়িয়ে।

ভালোবাসায় ছিলে পিতৃতুল্য
প্রতিবাদে হিমালয়ের মত,
এ জাতি তোমার দিলনা মূল্য
মুছেনা হারানো সেই ক্ষত!

ক্ষুধা দারিদ্র দুর্নীতি মুক্ত সোনার বাংলা গড়তে
প্রতিষ্ঠা করেছো মায়ের ভাষা স্বাধীন করেছো দেশ,
স্বল্পায়ূ জীবনে ভয় করনি অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে
৭৫’ এ ঘাতকের হাতে জীবন হলো নিঃশ্বেষ।

ঘাতকের বুলেটে মাটিতে গড়ালো সিঁড়ি বেয়ে তোমার রক্ত
তোমার রক্তে উর্বর আজ বাংলাদেশের ভূমি,
দেহ ছুঁতে না পেরে মাটি ছুঁয়ে শপথ নেয় তোমার কোটি ভক্ত
এ ভূমিতে জন্মানো ফসল তোমায় ভেবে চুমি।

তোমার রক্ত মিশে আছে আজও তেরোশত নদীর জলে
মানচিত্রে মাখা সে রক্ত, লাল-সবুজের মাঝে,
রক্তের ফিনকি আঁধার মনে আজও, প্রদীপ হয়ে জ্বলে
মার্চের ভাষণ মহাকব্য হয়ে আজও অন্তরে বাজে।

উদীপ্ত হই আমরা আজও তোমার ভাষণের বলে
তবুও, আগস্ট এলে শোকাহত এ জনপদ,
মৃত্যুঞ্জয়ী তুমি জনক, হারাবেনা কভূ ইতিহাস অতলে
তোমার কন্যা ঘাতকের বিচারে নিয়েছে শপথ।

যতদিন রবে বাংলায় ঘেরা তেরোশত নদী বহমান
ততোদিন তোমায় ডাকিবো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান।

তোমার অসমাপ্ত কাজগুলো আজ
তোমার সুযোগ্য কন্যা করে যায়,
তুমি হয়ে থাকবে এ জাতির তাজ
তোমার স্তুতি লিখি গান ও কবিতায়।