Thursday 13th June 2024
Thursday 13th June 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

শরীয়তপুরে করোনা ভাইরাসে ১জনের মৃত্যু, নতুন ৩৬ আক্রান্তকারীদের বাড়ি লকডাউন

শরীয়তপুরে করোনা ভাইরাসে ১জনের মৃত্যু, নতুন ৩৬ আক্রান্তকারীদের বাড়ি লকডাউন

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে ০১ জনের মৃত্যু হয়েছে। জানা যায়, গত ২৪ মে নড়িয়া উপজেলার সুরেশ্বর গ্রামের মৃত মহিউদ্দিন মুন্সীর ছেলে মোজাম্মেল মুন্সী করোনা উপসর্গ(জ্বর, সর্দি, ঠান্ডা) নিয়ে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়। সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় বৃহস্পতিবার ২৮ মে সকালে মোজাম্মেল মুন্সী মারা যায়। মারা যাওয়া ঐ ব‍্যক্তিকে জেলা প্রশাসন ও সিভিল সার্জনের নির্দেশনায় নড়িয়া উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ‍্য প্রশাসন নড়িয়া থানা পুলিশ ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।

সিভিল সার্জনের প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, শরীয়তপুরে নতুন করে আরো আক্রান্ত হয়েছে ৩৬ জন। এ পর্যন্ত এটাই জেলার সর্বোচ্চ আক্রান্ত। আক্রান্তরা রোগীটি হলেন সদর উপজেলার ডোমসারে ১৩জন, পৌরসভায় ১জন, গোসাইরহাট উপজেলার আলাওলপুরে ৭জন, ইদিলপুরে ১জন, জাজিরা উপজেলার নাওডোবা ইউনিয়নে ১জন, জাজিরা পৌরসভায় ৩জন, নড়িয়া উপজেলার ভোজেশ্বরে ১জন, ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নে ১জন, ফতেজঙ্গপুর ইউনিয়নে ১জন, ডামুড‍্যা উপজেলার সিড‍্যা ইউনিয়নে ৩জন, ডামুড‍্যা পৌরসভায় ১জন ও ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছওগা ইউনিয়নে ১জন, যাদের দেহে নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ২৮ মে পর্যন্ত মোট আক্রান্তের পরিমাণ দাড়িয়েছে ১২১ জন এবং মোট সুস্থ ঘোষনা করা হয়েছে ৪৬ জনকে। এ নিয়ে সদর উপজেলায় মোট আক্রান্ত ৩৭ জন, জাজিরা উপজেলায় ১৫ জন, নড়িয়া উপজেলায় ২০ জন, ভেদরগঞ্জ উপজেলায় ১২ জন, গোসাইরহাট উপজেলায় ১১জন ও ডামুড‍্যা উপজেলায় ২৬ জন। প্রাতিষ্ঠানিক সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে (সন্দেহভাজন) আছে ১জন। এ পর্যন্ত জেলায় মোট সন্দেহভাজন ২৫২১টি করোনার নমূনা সংগৃহীত হয়েছে। এর ২৩৭৬ জনের নমূনা ফলাফল এসেছে।

যারা আক্রান্ত হয়েছে, তাদের বাড়ি ও তাদের আশপাশের কিছু বাড়িকে জেলা প্রশাসন ও সিভিল সার্জনের নির্দেশনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা স্বাস্থ‍্য কর্মকর্তা ও থানা ইনচার্জের পক্ষ থেকে লকডাউন করে দেয়া হয়েছে এবং আক্রান্ত ব‍্যক্তিদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে স্বাস্থ‍্য নির্দেশনাসহ খাদ‍্যসামগ্রীও পৌঁছে দেয়া হয়েছে।