রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং

আংগারিয়া ইউনিয়নে নৌকার ক্লাবে হামলা ও দোকানপাট বাড়িঘর ভাঙচুর

আংগারিয়া ইউনিয়নে নৌকার ক্লাবে হামলা ও দোকানপাট বাড়িঘর ভাঙচুর

শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নে আনারসের মিছিল করে এসে নৌকার ক্লাবে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে। হামলায় মেম্বার প্রার্থীসহ নৌকার ৫ সমর্থক আহত হয়েছে। আহতদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার ০৭-ই নভেম্বর সন্ধ্যায় আংগারিয়া ইউনিয়নের পাকার মাথায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায় রবিবার বিকাল ৫টার দিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হাওলাদার পাকার মাথা হয়ে আংগারিয়া যায় তার কিছুক্ষন পরেই ৩ টি ট্রলার দিয়ে কয়েক’শ লোক আনারসের মিছিল করে এসেই নৌকার ক্লাবে হামলা করে। এ সময় হামলা কারীরা নৌকার ক্লাব দোকান পাট ও নৌকার সমর্থক তাইজুল ইসলাম মোল্লার বাড়ির ৪টি ঘর ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে।

হামলাকারীদের বাধা দিতে গেলে নৌকার ৫জন সমর্থককে কুপিয়ে আহত করে। আহতদের উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন ২নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী আক্তার হোসেন মোড়ল (৪৫) সেলিম ওজা (৪৫) আঃ রাজ্জাক মোল্লা (৬০) আমির হোসেন বাবু মোল্লা(৩৬)।

আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী আসমা আক্তার বলেন, আংগারিয়া ইউনিয়নের পাকার মাথায় নৌকার অফিসে বসে আমার সমর্থকরা আলোচনা করছিল। হঠাৎ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হাওলাদারের লোকজন ৩টি ট্রালার যোগে এসে নির্বাচনি অফিসে ও নৌকার কর্মীদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। এতে আমাদের ৪ জন নৌকার সমর্থক আহত হয়েছে।

এদিকে বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হাওলাদারকে মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়নি।

পালং থানার ওসি আকতার হোসেন বলেন, আংগারিয়া ইউনিয়নে হামলার খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এখন পরিস্থিতি শান্ত আছে। কোনও পক্ষ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।