রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং

শরীয়তপুরে নৌকার ৫ পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

শরীয়তপুরে নৌকার ৫ পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

শরীয়তপুরে নৌকার ৫ পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের পরাজয়ের দোষ চাপালেন প্রশাসনের উপর ।

শনিবার ১৩ নভেম্বর দুপুরে শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আংগারিয়া, পালং, ডোমসার, শৌলপাড়া ও মাহমুদপুর ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী যথাক্রমে আসমা আক্তার, আবুল হোসেন, মিজান মোঃ খান, আলমগীর হোসেন খান ও লিয়াকত হোসেন হান্নান তালুকদার যৌথ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দাবি করেন যে, ১১ নভেম্বর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় কিছু নেতাকর্মীদের সাথে ভোট কেন্দ্রে কর্তব্যরত পুলিশ পরস্পর যোগসাজশে নৌকার ব্যাচ পরিহিত ভোটারদের সাথে বিরূপ আচরণ করেছেন। তারা অভিযোগ করেন, ‘যেসকল ভোটারের সাথে নৌকার ব্যাচ ছিল, পুলিশ তাকেই পিটুনী দিয়ে কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়েছে।

ভোট কেন্দ্রে পুলিশের এরকম বিরূপ আচরণের কারণে নৌকার ভোটারগণ সুষ্ঠুভাবে তাদের ভোট প্রয়োগ করতে পারেনি। তারা অভিযোগ করেন, পুলিশের উপস্থিতিতে কেন্দ্র থেকে নৌকা প্রতীকের এজেন্ট বের করে দেয়া হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে পালং ইউনিয়নের নৌকার পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল হোসেন বলেন, নৌকার লোকজন রাস্তায় বের হলেই পুলিশ তাদেরকে ধাওয়া করেছে, নৌকার ভোটারগণকে পিটিয়ে কেন্দ্র ছাড়া করে দেয় এবং পুলিশের উপস্থিতিতে কেন্দ্র থেকে নৌকার এজেন্ট বের করে দেয় হয়েছে।

আংগারিয়া ইউনিয়নের পরাজিত নৌকার প্রার্থী আসমা আক্তার বলেন, তার ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা শুরু হয়েছে। বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হাওলাদারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে তার কর্মী-সমর্থকদের উপর হামলা চালাচ্ছে। বসতঘর ভাংচুর ও লুটপাট করছে। লোকজনের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করছে। নির্যাতনের ভয়ে নৌকার শতাধিক নেতাকর্মী তার বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে। তিনি বলেন, নৌকার ব্যাচ দেখলেই পুলিশ তাদেরকে পিটিয়েছে।

ডোমসার ইউনিয়নের নৌকার পরাজিত প্রার্থী মিজান মোঃ খান তার ইউনিয়নে পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবি জানান। শৌলপাড়া ইউনিয়নের নৌকার পরাজিত প্রার্থী মোঃ আলমগীর হোসেন খান তার ইউনিয়নের ভোট পুন গণনার দাবি করেন। স্থানীয় সাংবাদিকদের পাশাপাশি সংবাদ সম্মেলনে পরাজিত প্রার্থীদের নিজ নিজ এলাকার মেম্বার, নির্যাতিত লোকজনসহ ভোটারগণ উপস্থিত ছিলেন।