Friday 1st March 2024
Friday 1st March 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

শরীয়তপুরে সরকারি চালসহ আটক ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা

শরীয়তপুরে সরকারি চালসহ আটক ব্যবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা

আংগারিয়া খাদ্য গুদামের টেক্স রিলিফ (টিআর) ও কাজের বিনিময় খাদ্য কর্মসূচির (কাবিখা) চালসহ আংগারিয়া বাজারের চাল ব্যবসায়ীকে আটক করেছে আংগারিয়া ফাঁড়ির পুলিশ। সোমবার ভোর ৪ টার দিকে আংগারিয়া বাজারে অবস্থিত মেসার্স মেহেদী ট্রেডার্স এর স্বত্ত্বাধিকারী গোলাম মোস্তফা আংগারিয়া খাদ্য গুদামের সরকারি চালের বস্তা থেকে ব্যক্তিগত বস্তায় ঢেলে মেশিন দিয়ে বস্তার মুখ সেলাই করার সময় পুলিশ তাদের আটক করে।
আংগারিয়া পুলিশ ফাঁড়ি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর কার্যালয় সূত্র জানায়, ১৫ জুলাই সোমবার ভোর ৪ টায় শরীয়তপুর পৌরসভার আংগারিয়া বাজারের চাল ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফা আংগারিয়া খাদ্য গুদামের সরকারি চাল তার দখলে রেখে সরকারি চালের বস্তা থেকে নুরজাহান সুপার ফাইন রাইচ এর স্বচ্ছ বস্তায় চাল ঢুকিয়ে মেশিনের মাধ্যমে বস্তার মুখ সেলাই করছিল। সেই সময় খাদ্য গুদামের ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন ও মেহেদী ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী গোলাম মোস্তফাকে আটক করা হয়। আনোয়ার হোসেন বিভিন্ন প্রকল্প চেয়ারম্যানদের কাছ থেকে চাল ক্রয় করেছে মর্মে কাগজপত্র প্রদর্শণ করে তাৎক্ষণিক ছাড়া পায়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহাবুর রহমান শেখ। জানা গেছে এর পূর্বেও চাল ব্যবসায়ি গোলাম মোস্তফা সরকারি চাল ক্রয়-বিক্রয়ের দায়ে আটক হয়। সেই মামলায় গোলাম মোস্তফা দীর্ঘদিন হাজত খেটেছে এবং এখনও গোলাম মোস্তফা আদালতে হাজিরা দেয়।
আংগারিয়া পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মিন্টু মন্ডল বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি গোলাম মোস্তফার দোকানে রেখে সরকারি চাল ব্যক্তিগত বস্তায় স্থানান্তর করছে। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করি এবং এটিসিএসআই সালাউদ্দিনসহ ফোর্স নিয়ে গিয়ে গোলাম মোস্তফা ও আনোয়ার হোসেন নামে দুই জনকে আটক করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে হাজির করি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফার অপরাধ আমলে নিয়ে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৩৫ ও ৪৪ ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। আনোয়ার হোসেনকে সতর্ক করে খালাস প্রদান করেন।