Friday 1st March 2024
Friday 1st March 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

শরীয়তপুরে ৫দিনব্যাপী বৃক্ষরোপন অভিযান ও ফলদ বৃক্ষমেলা শুরু

শরীয়তপুরে ৫দিনব্যাপী বৃক্ষরোপন অভিযান ও ফলদ বৃক্ষমেলা শুরু

“পরিকল্পিত ফল চাষ, যোগাবে পুষ্টিসম্মত খাবার” এবং “শিক্ষায় বন প্রতিবেশ, আধুনিক বাংলাদেশ” এই শ্লোগানে শরীয়তপুরে পাঁচ দিনব্যাপী বৃক্ষরোপন অভিযান ও জেলা ফলদ বৃক্ষমেলা শুরু হয়েছে। সোমবার (২২ জুলাই) বেলা ১২টায় ফিতা কেটে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের। এর আগে বেলা ১১ টায় বৃক্ষরোপন অভিযান ও জেলা ফলদ বৃক্ষমেলা উপলক্ষে শরীয়তপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহেরের নেতৃত্বে র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সদর উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে আয়োজিত মেলা প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। সেখানে ফিতা কেটে মেলা উদ্বোধনের পর মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের। পরে পাঁচ দিনব্যাপী বৃক্ষরোপন অভিযান ও জেলা ফলদ বৃক্ষমেলা উপলক্ষে উপজেলা অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. রিফাতুল হোসাইন এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আল মামুন শিকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তপাদার ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহাবুর রহমান শেখ। এ সময় কৃষি ও বন বিভাগের বিভিন্ন কর্মকর্তা, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেন, আমাদের সুস্থ ভাবে বেচেঁ থাকার জন্য বেশি করে বৃক্ষ রোপনের কোন বিকল্প নাই। গাছের উপকারের কথা বলে শেষ করা যাবে না। আমরা যে অক্সিজেন ছাড়া ৫ (পাঁচ) সেকেন্ডও বেচেঁ থাকতে পারি না সেই অক্সিজেন তৈরী করে গাছ। আর গাছ থেকে আমরা পেয়ে থাকি ফল ফলাদি। যা খেয়ে আমরা জীবন ধারণ করি। আর গাছের কাঠ থেকে আমরা মুল্যবান আসবাবপত্র তৈরী করে থাকি। আজকে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব আমাদের ওপর পড়ছে তা থেকে রক্ষা পেতে হলে আমাদের অবশ্যই বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। বেশি করে গাছ লািেগয় ২৫ শতাংশ বনায়নের আওতায় আনতে হবে। তা না হলে আমাদের পরিবেশের ওপর মারাত্মক প্রভাব পড়বে। যার হাত থেকে আমরা কেউ রক্ষা পাবো না।