রবিবার, ৩১শে মে, ২০২০ ইং, ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
রবিবার, ৩১শে মে, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরের পালং মডেল থানার মোবাইল-১ ডিউটিরত পুলিশের হাতে ১০ জুয়াড়ী আটক

শরীয়তপুরের পালং মডেল থানার মোবাইল-১ ডিউটিরত পুলিশের হাতে ১০ জুয়াড়ী আটক

শরীয়তপুরের পালং মডেল থানাধীন পালং ইউনিয়নের গঙ্গাধরপট্টি সাকিনস্থ এলাকার ইউনুছ সরদার ছেলে চানমিয়া সরদার(২৭) এর বসত ঘরের পূর্ব পার্শে¦র ফাকা জায়গায় জুয়া খেলা অবস্থায় মোবাইল-১ ডিউটিরত পুলিশের হাতে ১০ জুয়াড়ী আটক হয়েছে। জুয়াড়ীরা হলো- আমির হোসেন খানের ছেলে মোঃ মিলন খান(২৯), সোনাবালি’র সরদারের ছেলে ফারুক সরদার (৩০), মৃত হাসেম সরদারের ছেলে আ: জলিল সরদার (৩২), নিরালা আবাসিক এলাকার মৃত সমীর চন্দ্র শীলের ছেলে লিটন শীল (৩২), গঙ্গাধর পট্টি সাথে বালিকা ছাদেম আলী সরদারের ছেলে রিপন সরদার (৩২), মৃত আক্কেল আলী বেপারীর ছেলে আ: ছাত্তার বেপারী (৩৬), রহমান খালাসীর ছেলে মোঃ ইদ্রিস খালাসী (৩৬), খেলসী বিলাসখানের হালান সরদারের ছেলে বাচ্চু সরদার (৩৩), গঙ্গাধরপুর টির ঢালীর ছেলে সোহাগ ঢালী (২২) ও খেলসী বিলাসখানের এমারত সরদারের ছেলে আবু বক্কর সরদার(৩৫)।
গত ২৪ সেপ্টেম্বর রাত ১১ টা ৪০ মিনিটে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওসি(অপারেশন) আশরাফুল ইসলামের নির্দেশনায় এস আই বিজন বাড়ৈ এর নেতৃত্বে ডিউটিরত মোবাইল-১ টিম পুলিশ ১১ টা ৫০ মিনিটে ঐ স্থান হতে ১০ জুয়াড়ীকে ঘেরাও করে ফেলে এবং ১২ টা ১৫ মিনিটে তাসের বান্ডেলসহ নগদ টাকা ও বিভিন্ন কোম্পানির নয়টি মোবাইল জব্দ করে তাদের আটক করে পালং মডেল থানায় নিয়ে আসে। পরেরদিন ২৫ সেপ্টেম্বর ১৮৬৭ সালের জুয়া আইনের ৩/৪ ধারায় এস আই বিজন বাড়ৈ তাদের বিরুদ্ধে একটি এজহার দাখিল করেন।