মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ ইং, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই জিলহজ্জ, ১৪৪৩ হিজরী
মঙ্গলবার, ৫ই জুলাই, ২০২২ ইং
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিষার

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য, বহুতল ভবন নির্মাণ

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য, বহুতল ভবন নির্মাণ

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিষার গ্রামের ২নং ওয়ার্ডে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। মামলার এজাহার জানা গেছে, ভেদরগঞ্জ অর্ন্তগত আর এস এবং এসএ জরিপী ৪৩নং মহিষার মৌজার আর এস ১৫৮৩ নং খতিয়ানে এবং এস এ ১২৫১ নং খতিয়ানে ২৫৩৮নং দাগে ৭২ শতাংশ, ৩০১৯ নং দাগে ২৪ শতাংশ, ৩০২০নং দাগে ২৫শতাংশসহ মোট ১,২১ একর ভূমির মধ্যে উক্ত আর এস এবং এসএ ৩০১৯নং দাগের ২৪ শতাংশ এবং ৩০২০নং দাগে ২৫শতাংশ।

এছাড়াও ৫০৬২নং দাগের ২৫শতাংশ হইতে সাড়ে ১২ শতাংশ ভূমিই বাদী হাসেম খান ওরফে আবুল হোসেন খানের দাবীকৃত নালিশী সম্পত্তি। উক্ত সম্পত্তি নিয়ে বিগত ২৭/০৪/২২ইং শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জের সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে দেওয়ানী ২৪৬/২২ মামলাটির আদেশ দেওয়া হয়। আদালত আদেশে বিবাদী কামাল খান গংদের ৭দিনের কারণ দশানোর নির্দেশ সহ চুড়ান্ত নিস্পত্তির পূর্ব পর্যন্ত নালিশী ভূমিতে উভয় পক্ষকে অন্তবর্তীকালীন স্থিতাবস্থার আদেশ প্রদান করা হয়।

কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে উক্ত জমিতে বহুতল ভবন নির্মানের অভিযোগ উঠেছে। আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করতে ওসি ভেদরগঞ্জকে নির্দেশ দেওয়া নির্মান কাজ বন্ধ রাখতে নোটিশ দিলেও তা অমান্য করার অভিযোগ রয়েছে বিবাদী পক্ষের বিরুদ্ধে।

বাদী পক্ষের আইনজীবী এ্যাড. মোঃ ছায়েদুর রহমান বলেন, আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বহুতল ভবন নির্মান কাজ করা হচ্ছে । আমরা আদালতকে বিষয়টি লিখিত ভাবে অবগত করবো। ওসি ভেদরগঞ্জকে নির্দেশ দিলেও তা সঠিক বাস্তবায়ন করতে পারেনি পুলিশ। এতে মামলার বাদী জমি হারানোর আশঙ্কায় ভুগছেন।

বিবাদী পক্ষের সিদ্দিকুর রহমান খান আদালতের নির্দেশ অমান্য করার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমার পিতার রেকর্ডকৃত জমিতে ভবন নির্মাণ করছি।


error: Content is protected !!