শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

প্রবাসীর সম্পত্তি বেদখলের ও হামলার অভিযোগ

প্রবাসীর সম্পত্তি বেদখলের ও হামলার অভিযোগ

দিনদুপুরে প্রবাসী পরিবার নুর ইসলাম মাঝি ওরফে(নিজাম মাঝী)র জমির দেয়াল ভেঙ্গে ও গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আনারুল গাইন গং এর বিরুদ্ধে। এর পৃষ্টপোষকতায় শরীয়তপুরের সখিপুরে ডিএমখালি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহসিন হক আবু বেপারী ও আমানউল্লাহ বেপারী রয়েছেন বলে জানান ভুক্তভোগী প্রবাসী পরিবার। বিষয়টি প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী পরিবার ৭জনকে অভিযুক্ত করে সখিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। গত (২৮অক্টোবর) শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ডিএমখালি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড ইয়াকুব বেপারীর কান্দি এই ঘটনা ঘটে।

হামলাকারীরা হলেন,আনারুল গাইন,হানিফা ঢালী,মোঃ বিল্লাল বাড়ী,নুর মোহাম্মদ ঢালী,বাদশা ঢালী,মিসেস আনু বেগম,মিসেস খাদিজা বেগম। স্থানীয় প্রত্যক্ষদোর্ষী সুত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার আমানউল্লাহ বেপারীর হুকুমে আনারুল গাইন সহ আরো ৭ জন নিজাম বেপারীর বাড়িতে হামলা করে। তখন তারা নিজাম বেপারীর জমি দখল করার জন্য বদলা নিয়ে আসে। এরপর জোপুর্বক জমির সিমানা প্রচীর ভেঙ্গে ফেলে। পরে নারিকেল গাছ আম গাছ খেজুর গাছ সহ আরো অনেক দামি দামি গাছ কেটে নিয়ে যায়। ঘটনার সময় হামলাকারীদের বাধা দিতে গেলে প্রবাসীর স্ত্রী মিম আক্তারকে একা পেয়ে সকলে মিলে মারধর করার চেষ্টা করতে থাকে। পরে আসেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়।

প্রবাসীর স্ত্রী মিম আক্তার বলেন,আমি একা বাড়িতে ছিলাম। আমার শশুর বাজারে ছিলো। এই সুযোগে তারা অতর্কিত হামলা করে আমাদের জমির সিমানা ভেঙ্গে ফেলে। আমি তাদের নিষেধ করলে উল্টো আমাকে অক্ষত বাসায় গালি গালাজ করে, আমাকে মারধর করতে আসে, আমানউল্লাহ বেপারী ও মৃত জহু গাইন এর স্ত্রী ও মেয়ে । আমানউল্লাহ বেপারী আমাদের জমির দেয়াল ভাঙ্গার ও গাছ কেটে নেওয়ার হুকুম দেন।

এবিষয়ে অভিযুক্ত মৃত, জহু গাইন এর মেয়ে খাদিজা বেগম বলেন,আমাকে মুরুব্বি আমানউল্লাহ বেপারী ও চেয়ারম্যান আবু বেপারী হুকুম করেছে, দেয়াল ভাঙ্গা ও গাছ কাটার জন্য, তাদের কথায় আমি এই কাজ করেছি, আমার কাছে তাদের হুকুমের রেকর্ড আছে, আমি শিকার করছি গাছ কেটে ও দেয়াল ভেঙ্গে আমি অপরাধ করছি। ভুল করছি।

এবিষয় ডিএমখালি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহসিন হক আবু বেপারীকে মুঠোফোন একাধিকবার কল করলেও তিনি কলটি রিসিভ করেননি।
এবং আমানউল্লাহ বেপারী’র ফোন নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়।

এবিষয় সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আসাদুজ্জামান হাওলাদার বলেন,থানায় নিজাম বেপারী একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাদের সিমানার দেয়াল ভেঙ্গে ও গাছ কেটে নিয়ে গিয়েছে ও তাদেরকে হুমকি দিয়েছে জানতে পারি। বিষটি তদন্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।


error: Content is protected !!