Wednesday 21st February 2024
Wednesday 21st February 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

দ্রুত ও স্বচ্ছ ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থা সময়ের দাবী: শেখ মফিজুর রহমান

দ্রুত ও স্বচ্ছ ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থা সময়ের দাবী: শেখ মফিজুর রহমান

শরীয়তপুরে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হলো মাসিক পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেসি কনফারেন্স-২০২৩। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: হেদায়েত উল্যাহ’র সঞ্চালনায় এতে সভাপতিত্ব করেন শরীয়তপুরের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: সালেহুজ্জামান।

কনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার মো: মাহবুবুল আলম, সিভিল সার্জন ডা: আবুল হাদি মো: শাহ পরান, অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চাঁদনী রুপম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো: সাইফুল ইসলাম, ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক, জেলা ম্যাজিস্ট্রেসি’র বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বৃন্দ, পারিবারিক আদালতের বিচারক, বিজ্ঞ সহকারী জজ, অতিরিক্ত ক্যাম্প কমান্ডার, মাদারীপুর (র‍্যাব-৮), শরীয়তপুর জেলা বার এসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বিজ্ঞ আইনজীবী মো: কামরুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক বিজ্ঞ আইনজীবী তাজুল ইসলাম, পরিদর্শক (পিবিআই), শরীয়তপুরের বিভিন্ন থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ বৃন্দ সহ শরীয়তপুরের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ।

প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে বিজ্ঞ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ বিচারপ্রার্থী মানুষের প্রতি আন্তরিক সেবা প্রদান করার গুরুত্ব আরোপ করেন। মামলা জট নিরসনে আদালতের পাশাপাশি পুলিশ প্রশাসন, ডাক্তার সহ অন্যান্য দপ্তরের ভূমিকা গুরুত্ব আরোপ করে তিনি উল্লেখ করেন, “দ্রুত ও স্বচ্ছ ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থা এখন সময়ের দাবী”।

বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তার স্বাগত বক্তব্যে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিগত দিনের মামলা নিষ্পত্তির পরিসংখ্যান উপস্থাপন করেন। আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ পূর্বক প্রত্যেককে তার কাজ সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করার তাগিদ ব্যক্ত করেন।

তিনি সমসাময়িক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি ফৌজদারি বিচার ব্যাবস্থার মান সমুন্নত রাখার তাগিদ প্রদান করেন। শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার তার বক্তব্যে বর্তমান পুলিশ- ম্যাজিস্ট্রেসি’র সম্পর্ক নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন। ফৌজদারি বিচার ব্যাবস্থার মান আরো সমুন্নত রাখতে তিনি এবং তার প্রশাসন আইনী কাঠামোর মধ্যে সর্বদা সচেষ্ট মর্মে উল্লেখ করেন। জেলা সিভিল সার্জন তার বক্তব্যে তাদের গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও কনফারেন্সে বিভিন্ন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বৃন্দ সহ অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ সমসাময়িক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে মুক্ত আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন। সর্বশেষ সভাপতির ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে কনফারেন্স সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।