Wednesday 17th April 2024
Wednesday 17th April 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

শরীয়তপুরে ‘আশ্বাস প্রকল্প’ এসডিএস’র অবহিতকরণ সভা

শরীয়তপুরে ‘আশ্বাস প্রকল্প’ এসডিএস’র অবহিতকরণ সভা

:
শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে শরীয়তপুর ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (এসডিএস) আয়োজিত
বুধবার ২৮ ই ফেব্রুয়ারী বেলা ৩ টায় আশ্বাস প্রকল্পের অবহিত করন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এসডিএস এর নির্বাহী পরিচালক রাবেয়া বেগম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, মোঃ নিজাম উদ্দিন আহমেদ।
উইনরক ইন্টারন্যাশনাল আশ্বাস প্রকল্পের সিনিয়র ম্যানেজার, মৃন্ময় মহাজন এর সঞ্চলনায় সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন, উইনরক ইন্টারন্যাশনাল আশ্বাস প্রকল্পের সিনিয়র ম্যানেজার- মোঃ ওমর ফারুক। শুভেচ্ছা বক্তব্যের পর পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে অনুপ্রেরণা ছায়া-চিত্র প্রেরণার আলোক শিখার প্রদর্শন ও একজন সফল উদ্যোক্তার গল্প শুনানো হয়।
এরপর প্রকল্পের লক্ষ্য উদ্দেশ্য কর্ম এলাকা সহ প্রকল্পের সংলিপ্ত আলোচনা তুলে ধরেন। প্রকল্প পরিচিতির পরে মুক্ত আলোচনা করা হয়। এতে উপস্থিত সকলেই অংশ গ্রহণ করেন এবং তাদের মতামত তুলে ধরা হয়।

এরপর সার্বিক বিষয়ের উপর প্রধান অতিথি বক্তব্য প্রদান করেন। প্রধান অতিথি, জেলা প্রশাসক মোঃ নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, মানব পাচারের শিকার হয়েছেন এমন লোকদের মানুষিক ও আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী করতে যারা উদ্যোগ নিয়েছেন তাদের আমি ধন্যবাদ জানাই। তবে তিনি বা তারা সত্যিকার অর্থেই মানব পাচার হয়েছেন কিনা তা সবার আগে নিশ্চিত হতে হবে। শরীয়তপুর, মাদারীপুর অঞ্চলের মানুষের মধ্যে ইতালি যাওয়ার প্রবনতা অনেক বেশি।
তাই প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাক্তিদের নির্বাচিত করতে না পারলে প্রকল্পের যে লক্ষ্য উদ্দেশ্য তা যথাযথ ভাবে বাস্তবায়িত হবে না। আমি আশা করবো, যারা এই প্রকল্পে সাথে আছেন, তারা সঠিকভাবে সার্ভাইভার নির্বাচন করতে কাজ করবেন। আর এই ক্ষেত্রে যেকোনো ধরনের সহযোগিতা প্রয়োজন হলে সহযোগী হাত বাড়িয়ে দিব।
এসডিএস এর নির্বাহী পরিচালক, রাবেয়া বেগম বলেন, শরীয়তপুর জেলা নদীবেষ্টিত চর অঞ্চল এবং উপযুক্ত কর্মসংস্থান না থাকায় এ অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষ বিদেশ মুখি। তবে বেশিরভাগ যারা যান অল্প শিক্ষিত কিংবা সংশ্লিষ্টতার কাজে অভিজ্ঞতা নেই। ফলে তারা সরকারিভাবে না গিয়ে বিভিন্ন দালালদের মাধ্যমে বিদেশ যাওয়ার চেষ্টা করে। এক্ষেত্রে অনেকেই বেচে ফেরলেও অনেকে সবকিছু হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে দেশে ফিরেন। এতে একদিকে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয় দিকে প্রতারিত হয়ে নিজের সবটুকু হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পথে বসে যাচ্ছেন এসব বিদেশ ব্যক্তিরা। তা যেন কোন ধরনের প্রতারিত শিকার না হয়, তারা যেন এদেশে যথাযথভাবে মান সম্মান পাবে বসবাস করতে পারে সেই লক্ষ্যে আমাদের এই প্রকল্প টি গ্রহণ করা হয়।

আমরা আশা করি সকলে সহযোগিতায় শরীয়তপুর জেলা মানব পাচারের শিকারগ্রস্তদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে সহয়ক ভূমিকা পালন করতে পারবো।

অবহিতকরণ অন্যন্যেদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাদিয়া জেরিন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, (প্রশাসন ও অর্থ) তানভীর হায়দার শাওন। অ্যাডভোকেট রওশনারা বেগম, সোডেপের নির্বাহী পরিচালক, শামিম খন্দকার, এসডিএস এর পরিচালক বিএম কামরুল হাসান( বাদল) সহ বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধি প্রমূখ।