শনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ ইং, ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণ ও উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য কর্মশালা

শরীয়তপুরে ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণ ও উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য কর্মশালা

ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণ ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে জেলা পর্যায়ে সহব্যবস্থাপনা কার্যক্রম অবহিতকরন ও সহব্যবস্থাপনা কিমিটি গঠন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মৎস অধিদপ্তরের ইকোফিশ প্রকল্পের আয়োজনে বুধবার দুপুরে শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।
কর্মশালার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক রিফাতুল হোসাইন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভির হায়দার, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাব্বির আহম্মেদ, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়ন্তী রুপা রায়, জেলা মৎস কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ বৈড়াগি, ইকোফিশ প্রকল্পের টিমলিডার আব্দুল ওয়াহাব, প্রকল্প সমন্বয়কারি মাসুদ সিদ্দিক প্রমূখ।
বিদেশি সংস্থা ইউএসএআইডির অর্থায়নে ওয়াল্ডফিসের সহায়তায় ইকোফিশ প্রকল্পটি শরীয়তপুরের নড়িয়া ও ভেদরগঞ্জ উপজেলায় বাস্তবায়ন করছে বেসরকারি সংস্থা সিএনআরএস। প্রকল্পের উদ্দেশ্য মৎস্য সম্পদের উপর নির্ভশীল মৎসজীবি সম্প্রদায়ের জীবনমান উন্নয়ন করা। ইলিশ সম্পদ নির্ভরশীল মৎসজীবি পরিবারের জন্য বিকল্প কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা। মৎসজীবি পরিবারের নারী জনগোষ্ঠির আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটানো। ওই নারী জনগোষ্ঠির দক্ষতা উন্নয়নের মাধ্যমে বিকল্প কর্মসংস্থানের মাধ্যমে জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন করা। ইলিশ সম্পদ রক্ষায় সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ পালন করতে জেলা সম্প্রদায়কে উদ্বুদ্ধ করা।
কর্মশালায় বিভিন্ন পর্যায়ের জেলে, মৎস্য বিক্রেতা, আড়ৎদার, জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালা শেষে জেলা প্রশাসককে সভাপতি ও জেলা মৎস কর্মকর্তাকে সদস্য সচিব করে ৩০ সদস্যর ইলিশ সহব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করা হয়েছে।


error: Content is protected !!