বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং, ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রজব, ১৪৪৪ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং
শরীয়তপুরের ডামুড্যা

ঘুরে ঘুরে শীর্তাতদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ

ঘুরে ঘুরে শীর্তাতদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ

কখনো ঘন কুয়াশা আবার কখনোও কনকনে শীতে জবুথবু হয়ে পড়ছে জনজীবন। শরীয়তপুরের ডামুড্যার উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈতপ্রবাহ। বিশেষ করে সাধারন মানুষের, দিনমজুর ও খেটে খাওয়া মানুষরা এই প্রচন্ড শীতে কাহিল হয়ে পড়েছে। গত দুই সপ্তাহ যাবত শরীয়তপুরের ডামুড্যা ও তার আশেপাশের অঞ্চলের তাপামাত্র ৮-১৫ডিগ্রির মধ্য ওঠানামা করছে। এতে করে চরম বিপাকে পড়েছে সকল শ্রেণির মানুষ।

অনেকেই অর্থের অভাবে শীতের গরম কাপড় কিনতে না পারার কারণে অনেকটাই কষ্টের মধ্যদিয়ে এই কনকনে শীতে দিন অতিবাহিত করছে। এই সব শীতার্তদের মানুষদের গরম কাপড়ের অভাব থেকে রক্ষা করতে প্রতি শীত মৌসুমেই শরীয়তপুর -৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নাহিম রাজ্জাক এমপির নির্দেশে ডামুড্যা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ গোলন্দাজ ঘুরে ঘুরে শীত বস্ত্র হিসেবে কম্বল প্রদান করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি শীত মৌসুমে ডামুড্যা উপজেলার পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ গোলন্দাজ নিজেই শুক্রবার উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করা সাধারন মানুষ, অসহায়, খেটে খাওয়া শতাধিক শীর্তাত মানুষদের খুজে খুজে শীতবস্ত্র (কম্বল) বিতরন করেছেন।

শীতবস্ত্র পাওয়া একাধিক শীর্তাতরা বলেন এদানিং শীতের দাপট অনেক বেড়েছে। এই শীতের মধ্যে এমপির দেওয়া এই শীতবস্ত্র আমাদের অনেক উপকারে আসবে। বিশেষ করে ভ্যান গাড়ি চালানোর সময় অনেক বাতাস লাগে, অনেক ঠান্ডা লাগে। প্রচন্ড শীত আর ঠান্ডা বাতাস থেকে অনেকটাই রক্ষা পাবো।

উপজেলা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ গোলন্দাজ বলেন প্রকৃত শীর্তাতদের মাঝে আমাদের প্রিয় নেতা শরীয়তপুর-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নাহিম রাজ্জাক এমপির এই শীত বস্ত্র পৌছে দিতে আমি চেস্টা করছি। আমাদের প্রিয় নেতা নাহিম রাজ্জাক এমপির নির্দেশে আগামী সপ্তাহে ২ হাজার চাদর বিতরন করবো,আপনারা আমাদের মমতাময়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং শরীয়তপুর -৩ আসনের মাননীয় সংসদ আলহাজ্ব নাহিম রাজ্জাক এমপির জন্য দোয়া করবেন। আশা রাখি এই শীতবস্ত্রগুলো পেয়ে এই মানুষগুলো অনেক উপকৃত হবে।

 


error: Content is protected !!