বৃহস্পতিবার, ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং, ২১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে আ’লীগের দু গ্রুপে সংর্ঘষ আহত ১০

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে আ’লীগের দু গ্রুপে সংর্ঘষ আহত ১০

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট কুচাইপট্টিতে এলাকায় অধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা খোকা বেপারীর বাড়িতে হামলা চলিয়েছে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীর। এ হামলায় উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
স্থানীয়রা জানান, নদীতে মাছ ধরা নিয়ে কুচাইপট্টি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খোকা বেপারী ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজ সরদারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল সন্ধ্যায় কুচইপট্টি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজ সরদারের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী খোকা বেপারীর বাড়িতে হামলা চালায়। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এসময় খোকা বেপারীর সমর্থক মাহবুব পাটোয়ারী, বাবুল হাওলাদার ও জাকু ফকিরসহ ৭/৮জন আহত হয়। আহতদের ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা খোকা বেপারী জানায়, আমার ভাই কুচাইপট্টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের পর থেকেই সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজ সরদার আমার ভাইয়ের সাথে প্রতিদ্বন্ধিতা করে পরাজিত হওয়ার পর থেকেই নানা ভাবে আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। গতকাল পরিকল্পিত ভাবে জামাত বিএনপির দেড় দুই শাতাধিক সন্ত্রসী নিয়ে আমাদের পুরান বাড়িতে হামলা চালায়। এ হামলায় আমাদের ৭/৮ জন আহত হয়েছে। গোসাইরহাট থানায় ফোন দিলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজ সরদার বলেন, নদীতে মাছ ধরা জেলেদের মাঝে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় খোকা বেপারীর সন্ত্রাসীরা আমার লোকজনের উপর হামলা চালিয়েছে।৩/৪ জন আহত হয়েছে। তাদের গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা সোহেব আলী জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও নদীতে মাছ ধরা নিয়ে হামলার ঘটনাঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনেছি। কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনায় এখানো মামলা হয়নি।