রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং
২৮ নভেম্বর গোসাইরহাট ইউপি নির্বাচন

আহসান সিদ্দিকী লাবু গোসাইরহাট ইউপি’র নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জন সমর্থনে এগিয়ে

আহসান সিদ্দিকী লাবু গোসাইরহাট ইউপি’র নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জন সমর্থনে এগিয়ে

শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট উপজেলার গোসাইরহাট ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ব্যাপক জন সমর্থনে এগিয়ে রয়েছেন সাবেক সফল চেয়ারম্যান চৌধুরী আহসান সিদ্দিকী (লাবু)। তিনি মটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেছেন।

চৌধুরী আহসান সিদ্দিকী (লাবু) একজন প্রবীন রাজনীতিবিদ, সদা হাস্যোজ্জল, শিক্ষানুরাগী এবং একজন সাদা মনের মানুষ। তিনি ইতোপূর্বে দুই দুই বারের সফল চেয়ারম্যান। তিনি চেয়ারম্যান থাকা কালে মেধা, দক্ষতা, যোগ্যতা, সততা, শ্রম এবং নিষ্ঠার সাথে এলাকার সার্বিক উন্নয়ন এবং জনগণের যথাযথ সেবা করেছেন।

শুধু তাই নয়, চৌধুরী আহসান সিদ্দিকী (লাবু) গোসাইরহাট উপজেলার সাবেক সফল ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। বর্তমানে তিনি গোসাইরহাট উপজেলার আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

চৌধুরী আহসান সিদ্দিকী (লাবু) গোসাইরহাট উপজেলার ঐতিহ্যবাহী চৌধুরী পরিবারের সুযেগ্য সন্তান। তার কাছে কোন দিন দুঃস্থ ও অসহায় মানুষ খালি হাতে ফেরেনি। যেকোন সাধারণ জনগণ তার কাছে কোন কাজের জন্য গেলে তাৎক্ষনিক মিমাংসা করে দিতেন। তার চেয়ারম্যান থাকা কালে সাধারণ সমস্যার কোন মামলা মোকদ্দমার খবর পাওয়া যায়নি। এক কথায় বলা যায় সর্বগুনের অধিকারী।

তাই তিনি এবারেও সর্ব শ্রেণি পেশার মানুষের ব্যাপক সমর্থনে তিনি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছেন। জনগণের উৎসাহ নিয়েই তিনি মাঠে নেমেছেন। তার এবারের প্রতীক মটর সাইকেল। গোসাইরহাট ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ড ঘুরে দেখা যায় চৌধুরী আহসান সিদ্দিকী (লাবু) জনসমর্থনে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন।

চৌধুরী আহসান সিদ্দিকী (লাবু) একান্ত এক সাক্ষাতকারে বলেন, ইতোপূর্বে দুই দুই বার জনগণ আমাকে তাদের প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। এবার তাদের ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনায় আমি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি। আমি কতটুকু সেবা করতে পেরেছি তার হিসেব জনগণের কাছে। জনগণ আমার অভিভাবক। আমি মনে করি আমার অভিভাবকগণ ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে আমাকে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে পুনরায় নির্বাচিত করে তাদের পাশে থেকে কাছে থেকে সেবা করার সুযোগ দিবেন। আর আমার কিছুই বলার নেই। নেই কোন চাওয়া পাওয়া। আমি জনগণের পাশে আছি, জনগণের পাশে থাকবো। এটুকু বলব আমি পুনরায় নির্বাচিত হলে জনকল্যাণে আমার অসম্পূর্ণ কাজ আমি সম্পূর্ণ করবো ইনশাআল্লাহ।