বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং

অবৈধ বালু উত্তলন বন্ধ করার লক্ষে মতবিনিময় সভা

অবৈধ বালু উত্তলন বন্ধ করার লক্ষে মতবিনিময় সভা

পদ্মা নদীর চর থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার কুন্ডেরচর ইউনিয়নের কয়েক হাজার জনতা প্রতিবাদ সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা করেছেন।

শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪ টায় কুন্ডেরচর ইউনিয়নের পদ্মা নদীর পাড়ে সফিকাজীর মোড়ে,বর্তমান কুন্ডেরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব আক্তার হোসেন বেপারীর সভাপতিত্বে সঞ্চালনায় স্থানীয় প্রায় ০১ হাজার জনতা নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদ সভায় যোগ দিয়েছেন।

জানা গেছে, বিগত ০৫ থেকে ০৬ মাস ধরে অবৈধ( কাটার) ড্রেজার দিয়ে,কুন্ডেরচর ইউনিয়ন ও বিলাসপুর ইউনিয়নের ১৫ থেকে ২০ জন অসাধু বালু ব্যবসায়ীরা পদ্মা নদী থেকে বালু উত্তলন করে আচ্ছেন।
প্রায় ২০ জন বালু খেকো প্রতিদিন কয়েক হাজার ফিট বালু পদ্মা নদী থেকে অবৈধ ভাবে উত্তোলন করতেছে। উপজেলা প্রশাসন কয়েক দফায় অভিযান পরিচালনা করলেও পুনরায় বালু খেকো এসব ব্যবসায়ীরা মাসের পর মাস বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে। কুন্ডেরচর ইউনিয়নের নদী সংলগ্ন দুই পারে প্রায় ১০ হাজার জনতার বসবাস।নদী থেকে বালু উত্তলন করায় ৪শ থেকে ৫শ পরিবার নদী ভাঙনে আতংকে আছে, হারিয়ে নিঃশ্ব হয়ে যাচ্ছে ফসলি জমি।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তরা বলেন, একদিকে সরকার বাংলাদেশকে ভূমিহীন মুক্ত করার লক্ষ্যে কাজ করছে অন্যদিকে ভূমিদস্যু বালু খেকোরা নদী থেকে বালু কেটে নেওয়ায় হাজার হাজার লোক ভিটে মাটি হারিয়ে ভূমিহীন নিঃশ্ব হয়ে যাচ্ছে। প্রশাসন অভিযান পরিচালনা করলে তারা আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে বের হয়ে আবার বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে।

প্রতিবাদ সভায় কুন্ডেরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব আক্তার হোসেন বেপারী বলেন, নদীতে বালু উত্তলন , এবং যারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত আছেন, আজকের সমাবেশের মাধ্যমে তাদেরকে সাবধান করে দিতে চাই।পাশাপাশি এই সমস্ত অপকর্মের বিপক্ষে আমি এবং আমার পরিষদ সর্বদায় কাজ করে যাবো।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, কুন্ডেরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব আক্তার হোসেন বেপারী, সাবেক চেয়ারম্যান জনাব সালাউদ্দিন বেপারী, সাবেক চেয়ারম্যান মোতালেব মোল্লা, জাজিরা থানার এস আই জনাব বোরহান উদ্দিন, কুন্ডেরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নান্টু মল্লিক ,হাজীঃ শরৎ উল্লাহ্ কলেজের প্রিন্সিপাল আবুল কালাম আজাদ,জাজিরা কৃষি ব্যাংকের কেশিয়ার নুর জামান বেপারী, কামাল ভূইয়া, আনোয়ার হোসেন বেপারী, সিরাজ বেপারী, বাবুল খাঁন,আলতাব খাঁন,রব মোল্লা, লুৎফর রহমান বেপারী, সাবেক ছাত্র নেতা আউয়াল বেপারী, শহীদ চৌকিদার,মোঃ আসেদ আলী ফকির,প্রমুখ।


error: Content is protected !!