সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ ইং, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ ইং

শ্যালককে খুন করলেন দুলাভাই !

শ্যালককে খুন করলেন দুলাভাই !

শালাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে দুলাভাইর বিরুদ্ধে। শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় রোববার (০১ মে) রাতে উপজেলার মোক্তারের চর ইউনিয়নের মূলপাড়া ছাপর আলী ব্যাপারী কান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মেহেদী হাসান খান (১৮) উপজেলার মূলপাড়া ছাপর আলী ব্যাপারী কান্দি গ্রামের আলমগীর খানের ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই গ্রামের মকবুল হোসেন খানের ছেলে জামির হোসেন জামু খান (৩০) সোমবার সন্ধ্যায় প্রতিবেশী জিতু ব্যাপারীর উঠানে পারিবারিক কলহ নিয়ে তাঁর স্ত্রী সোনালী আক্তারকে বকাঝকা করছিলেন। এক পর্যায়ে জামু খান তাঁর স্ত্রী সোনালীকে তেরে মারতে গেলে তখন সোনালীর চাচাতো ভাই মেহেদী হাসান বাঁধা দেয়। ক্ষিপ্ত হয়ে জামু খান তাঁর শালা মেহেদীর পেটে ছুরিকাঘাত করে। তখন রক্তক্ষরণ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা মেহেদীকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠায়। সদর হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন।

নিহত মেহেদীর বাবা আলমগীর খান বলেন, আমার ছেলে মেহেদী আমার ওয়ার্কশপের দোকানে কাজ করতো। আমার ভালো ছেলেকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে জামু খান হত্যা করেছে। জামু খাকে আইনের আওতায় এনে ফাঁসি দেয়া হোক।

নড়িয়া থানার তদন্ত ওসি (ভারপ্রাপ্ত ওসি) আবীর হোসেন জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মেহেদীর লাশ শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত জামু খান ও তাঁর পরিবারের লোকজন পলাতক। তাদের আটকের চেষ্টা করছি। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।