বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ ইং, ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৩ই মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ ইং

কালকিনিতে ভূয়া ডাক্তারের এক বছরের কারাদন্ড

কালকিনিতে ভূয়া ডাক্তারের এক বছরের কারাদন্ড

মাদারীপুরের কালকিনিতে মোঃ এমদাদ প্যাদা (৫৩) নামের এক ভূয়া ডাক্তারকে আটক করেছে মাদারীপুর র‌্যাব-৮। উপজেলার খাসেরহাট বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে বিপুল পরিমান অবৈধ ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। আটককৃত এমদাদ প্যাদা উপজেলার বাশগাড়ী এলাকার কানুরগাঁও গ্রামের আমজেদ আলী প্যাদার ছেলে। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবদুস সামাদ তাঁকে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন। ১২ জুন বুধবার সকালে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা প্রশাসন।
র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্প কমান্ডার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের একটি গোয়েন্দা দল কয়েক মাস ধরে ডা. এমদাদ প্যাদাকে নজরদারী করছিলো। এর ভিত্তিতে ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী অধিনায়ক সহকারি পুলিশ সুপার মোঃ ইফতেখারুজ্জামান এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার খাসেরহাট বাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ভূয়া ডাক্তার মোঃ এমদাদ হোসেন প্যাদাকে আটক করেন। উক্ত ভূয়া ডাক্তার চিকিৎসা শাস্ত্রে কোন প্রকার ডিগ্রীধারী না হয়ে এবং এসএসসি পাশ না হওয়া সত্ত্বেও ডাক্তার পদবী ব্যবহার করতেন এবং এ্যালোপ্যাথিক ও আয়ুর্বেদী সহ বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা প্রদান করে আসছিলেন। তিনি যে কোন সাধারণ রোগেও স্টেরয়েড ইনজেকশন ও ট্যাবলেট দ্বারা রোগীদের চিকিৎসা করতেন। তিনি তার নিজ বসত বাড়ীর একটি কক্ষে আল্লাহর দান ঔষাধালয় নামক চেম্বার খুলে চিকিৎসা প্রদানরত অবস্থায় হাতে-নাতে আটক করা হয়। আটককৃত ভূয়া ডাক্তারের চেম্বার হতে বেশ কিছু পরিমাণ ভূয়া ডাক্তার পদবী ব্যবহারকৃত ভিজিটিং কার্ড এবং বিপুল পরিমাণ স্টেরয়েড সহ এ্যালোপ্যাথিক ও আয়ুর্বেদিক ওষুধ জব্দ করা হয়। পরে আটককৃত ভূয়া ডাক্তারকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবদুস সামাদ শিকদার মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৯ ধারা মোতাবেক ভূয়া ডাক্তার মোঃ এমদাদ হোসেন প্যাদা (৫৩) কে ০১ (এক) বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন।


error: Content is protected !!