শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী
শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং
জাজিরায় জমি সংক্রান্ত জের

অসহায় সখিনা বিবির আর্তনাদ ॥ গুম করে হত্যার হুমকি

অসহায় সখিনা বিবির আর্তনাদ ॥ গুম করে হত্যার হুমকি

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় জমি সংক্রান্ত জেরে বিবি সখিনা নামে এক অসহায় নারীকে মেরে ফেলার পায়তারায় লাঠি ও কিলঘুষি দিয়ে মারাত্মকভাবে আঘাত করে আহত করার ঘটনা ঘটেছে। আহত ঐ নারীকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার (৮ নভেম্বর) জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের রশিদ ঢালীর কান্দিতে এ ঘটনা ঘটে।

সখিনা বিবি সেনেরচর ইউনিয়নের রশিদ ঢালীর কান্দির কুটি সরদার ও আছিয়া খাতুনের একমাত্র মেয়ে। ভূক্তভোগী বিবি সখিনা জানান, আমি আমার মা আছিয়া খাতুনের ওয়ারিশ সূত্রে মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার মোজাফফরপুর মৌজার বিআরএস ১৩৫২ দাগে ২১.৭০ শতাংশ, ৪৮০৮ দাগে ৩৮ শতাংশ, ৪৭৬২, ৪৮৩৯ ও ৫০২৯ দাগ ছাড়াও সেনেরচর মৌজার অন্যান্য দাগে জমির মালিক হয়েও আমার অন্যের নিকট ভিক্ষা করে চলতে হয়। এ জমি পাওয়ার জন্য শরীয়তপুর কোর্টে আমার একাধিক মামলা রয়েছে। মামলা পরিচালনা করে আমি নি:স্ব হয়ে ভিক্ষা করে বেড়াই। যার নিকট যাই, আমি নারী বলে তারা সুযোগ-সুবিধা ও অর্থ নিয়ে আমার পক্ষে কাজ করে না।

মামলা পরিচালনা করি বলে, আ: রশিদ ঢালীর ছেলে রিপন ঢালী(৪৮), খোকন ঢালী(৫০), রিপন ঢালীর ছেলে লিংকু ঢালী ও সাহেব আলীর ছেলে আলমগীর ঢালী আমাকে প্রায়ই হত্যা করার জন্য সুযোগ খুজেঁ দৌড়ায় এবং মারধর করে।

গত রবিবার ৮ নভেম্বর শরীয়তপুর কোর্ট থেকে তদন্ত শেষে তারা যাওয়ার পরে আমাকে আ: রশিদ ঢালীর ছেলে রিপন ঢালী(৪৮), খোকন ঢালী, রিপন ঢালীর ছেলে লিংকু ঢালী ও সাহেব আলীর ছেলে আলমগীর ঢালী হত্যা করার পায়তারায় প্রচুর মারে। যে আঘাতের কারনে আমি প্রস্রাব করে দিয়েছি। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আমি জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হই। এজন্য আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্নও ফুটে ওঠেছে। এ বিষয়ে জাজিরা থানায় আমি মামলা করতে গেলে তারা মামলা নেয়নি।

স্থানীয় মেম্বার জাহাঙ্গীর শিকদার, আল ইসলাম, নাজমুল ঢালী মোবাইল ফোনে জানান, স্থানীয় প্রভাবশালী আ: রশিদ ঢালীর ছেলে রিপন ঢালী, খোকন ঢালী, রিপন ঢালীর ছেলে লিংকু ঢালীরা বিবি সখিনাকে অনেক মারধর করেছে শুনেছি। এ বিষয়ে গ্রামে গুঞ্জন শোনা যায় যে, সখিনা বিবিকে এলাকায় ঢুকলেই গুম করে মেরে ফেলা হবে। সখিনা বিবি অসহায়। ওকে আইনের লোকেরা সহযোগিতা না করলে জমি তো পাবেই না বরং সখিনার জীবন যাবে।

এ বিষয়ে সেনেরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইসমাইল মোল্লা বলেন, বিবি সখিনা ও রিপন ঢালীদের মধ্যে জমি সংক্রান্ত সমস্যা থাকতে পারে। রিপন ঢালী বলেছে, সখিনা জমি পেলে তাকে দিয়ে দিবে। জাজিরা ইউএনও অফিসে সখিনার সাথে দেখা হলে, বিষয়টি আমি দেখবো বলেছি। এজন্য চৌকিদার দিয়ে সখিনাকে খবর দিয়েছিলাম। আসলে সখিনা একটি ৬০-৭০% পাগল একটি মেয়ে। সখিনা আমার নিকট আসেনি।

জাজিরা থানা ওসি(তদন্ত) মিন্টু চন্দ্র মোবাইল ফোনে বলেন, সখিনা বিবি নামে কেউ মামলা করতে আসেনি। মামলা আসলে ব্যবস্থা নিব।