মঙ্গলবার, ৯ই মার্চ, ২০২১ ইং, ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে রজব, ১৪৪২ হিজরী
মঙ্গলবার, ৯ই মার্চ, ২০২১ ইং

মাস্টার কি দিয়ে ৫ মিনিটেই মোটরসাইকেল চুরি, চোরচক্রের ৭ সদস্য গ্রেফতার করেছে শরীয়তপুর জেলা পুলিশ

মাস্টার কি দিয়ে ৫ মিনিটেই মোটরসাইকেল চুরি, চোরচক্রের ৭ সদস্য গ্রেফতার করেছে শরীয়তপুর জেলা পুলিশ

শরীয়তপুরে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোরচক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে, বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে আরো পাঁচ মোটরসাইকেল চোরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার মঈনুদ্দিন সরদারকান্দি গ্রামের মোতালেব ঢালীর ছেলে সোহেল ঢালী (২৫), গোসাইরহাট উপজেলার দক্ষিণ কোদালপুর গ্রামের গিয়াস উদ্দিন দেওয়ানের ছেলে রাসেল দেওয়ান (২৭), মো. পারভেজ আহম্মেদ (২১), রিয়াদ (১৯), লালন সরদার (৩৮), হানিফ মোল্লা (২২) ও হেলাল বকাউল (২১)। এদের মধ্যে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে সোহেল ঢালী ও রাসেল দেওয়ানকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪ টার দিকে শরীয়তপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও ক্রাইম) মো. সাইফুর রহমান পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, গত ৭ জানুয়ারি রাত দেড়টার দিকে শরীয়তপুরের সখিপুর থানার ডিএমখালী ইউনিয়নের মুসলমানকান্দি ব্রিজের সামনে চেক পোস্ট বসায় পুলিশ। তখন মো. পারভেজ আহম্মেদ ও রিয়াদ একটি লাল রংয়ের টিভি এস মেট্রো প্লাস ১১০ সিসি মোটরসাইকেল নিয়ে মাদারীপুর থেকে কুমিল্লার দিকে যাচ্ছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদে তারা মোটরসাইকেল চুরি কথা স্বীকার করেন। পরে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

মাদারীপুর সদর থেকে লালন ও শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ থানা এলাকার সিসি ফুটেজ দেখে সখিপুর থেকে সোহেল ঢালী ও রাসেল দেওয়ানকে গ্রেফতার করা হয়। হেলালকে চুরির অপরাধে সখিপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারদের কাছ থেকে তিনটি মোটরসাইকেল ও ৬৯ হাজার টাকা জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় ওই সাতজনের বিরুদ্ধে সখিপুর থানায় মামলা হয়েছে। তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতার চোরচক্রের দুই সদস্য পুলিশকে জানিয়েছেন, তারা মাস্টার কি ব্যবহার করে পাঁচ মিনিটের মধ্যে একটি মোটরসাইকেল চালু করতে পারতেন।

সংবাদ সম্মেলনে ভেদরগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আমিনুর রহমান, সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান হাওলাদার ও উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মিরাজ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।