শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে অসহায়দের পাশে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কাজ সর্বদা চলমান

শরীয়তপুরে অসহায়দের পাশে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কাজ সর্বদা চলমান
শরীয়তপুরে অসহায়দের পাশে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কাজ সর্বদা চলমান

শরীয়তপুরে করোনা ভাইরাস বিস্তৃতিরোধে অসহায়দের পাশে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতৃবৃন্দের কাজ সর্বদা চলমান রয়েছে।

করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে সচেতনতা লিফলেট, জীবানুনাশক স্প্রে, জীবানুনাশক ঔষধ, মাস্ক বিতরণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমে সক্রিয়ভাবে কাজ করেছে সংগঠণটি।

বর্তমান ধান পাকার মৌসুমে শরীয়তপুর সদর উপজেলায় করোনাভাইরাসের প্রভাবে শ্রমিক সঙ্কটের মুহূর্তে গরীব কৃষকের পাশে থেকে ১৫০ শতাংশ জমির পাকা ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলেন জেলা ও সদর পৌরসভা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (০৫ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সদর উপজেলার চিতলিয়া ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের কৃষক আবুল কালাম খান ও কামরুল মুন্সীর জমির পাকা ধান কেটে তাদের বাড়িতে পৌঁছে দেন। ধান কাটার নেতৃত্ব দেন শরীয়তপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক তাইজুল ইসলাম সরকার ও শরীয়তপুর পৌরসভার সভাপতি জিল্লুর রহমান সবুজ।

এ সময় শরীয়তপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক তাইজুল ইসলাম সরকার বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবানে সাড়া দিয়ে ও আমাদের নেতা ইকবাল হোসেন অপুর নির্দেশে করোনার শুরু থেকে সচেতনতা লিফলেট, জীবানুনাশক স্প্রে, জীবানুনাশক ঔষধ, মাস্ক বিতরণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমে সক্রিয়ভাবে কাজ করেছে স্বেচ্ছাসেবকলীগ। বর্তমান ধান পাকার মৌসুমে শরীয়তপুর সদর উপজেলায় করোনাভাইরাসের প্রভাবে শ্রমিক সঙ্কটের মুহূর্তে গরীব কৃষকের পাশে থেকে কাজ করছে সংগঠণটি। বর্তমানে করোনাভাইরাসের কারণে উপজেলার কৃষকরা অসহায় হয়ে পড়েছেন। ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। সেজন্য আমাদের নেতাকর্মীরা কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগের ৩৫ নেতাকর্মী ধান কেটে আঁটি বেঁধে কৃষকের বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে।

শরীয়তপুর পৌরসভা স্বেচ্ছাসেবক লীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনার কারণে কৃষক যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হন সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে ধান কাটার কাজ করা হচ্ছে। রোজা রেখে আমরা ধান কেটেছি। আগামীতে আংগারিয়া ইউনিয়নের কৃষকের ধান পাকা শুরু হলে কেটে ঘরে তুলে দেয়া হবে। আমাদের সংগঠণ ইকবাল হোসেন অপুর নির্দেশে করোনার সংকটে অসহায়দের পাশে সবসময় কাজ করে যাবে।

এ সময় অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জুয়েল ও হুমায়ুন কবির সোহাগ খান, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক সালেক খানসহ জেলা ও সদর পৌরসভা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা।


error: Content is protected !!