রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ই সফর, ১৪৪২ হিজরী
রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং
চট্টগ্রামের বাঁশখালী মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশে হামলার প্রতিবাদে

সংসদ সদস্য পদ বাতিলের দাবিতে শরীয়তপুরে মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের মানববন্ধন

সংসদ সদস্য পদ বাতিলের দাবিতে শরীয়তপুরে মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের মানববন্ধন

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশে হামলার প্রতিবাদে মোস্তাফিজুর রহমান এমপি’র সংসদ সদস্য পদ বাতিল ও তাকে আওয়ামী লীগ সংগঠন থেকে বহিস্কারের দাবিতে বৃহস্পতিবার ৩ সেপ্টেম্বর শরীয়তপুরে সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা।

জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ছাত্তার খানের নির্দেশে শরীয়তপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের সামনে দুই শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয় সমাবেশ ও মানববন্ধন।

এতে বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক সরদার। এ সময় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিল হাওলাদার, সদর উপজেলার সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ শিকদার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক মো. দুলাল ছৈয়াল প্রমূখ। এছাড়া জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সহ-সভাপতি ফারুক আলম রাড়ী, মো: রফিকুল ইসলাম রতন, শহিদুজ্জামান খান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এ এইচ এম নজিবুল হক, সহ-সাংগঠণিক সম্পাদক রুবেল রাড়ী, মো: মাসুদ রাহাত রানা, অর্থ সম্পাদক শাহানা আক্তার রিনা, দপ্তর সম্পাদক আশ্রাফুল রাসেল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম বিপ্লব অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তারা বলেন, সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমানের সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা বীর মুক্তিযোদ্ধা, তাদের পরিবারের সদস্য ও সাংবাদিকদের আহত করা হয়েছে। তাই হামলার নির্দেশদাতা মোস্তাফিজুর রহমান এমপির সংসদ সদস্য পদ বাতিল এবং আওয়মী লীগ সংগঠন থেকে তাকে বহিস্কারসহ জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি করেন তারা। এ সময় দেশের সব মুক্তিযোদ্ধার নিরাপত্তা প্রদানেরও দাবি জানান।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারী শহীদ মৌলভী সৈয়দ আহমেদের বড় ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আলী আশরাফকে রাষ্ট্রীয় সম্মাননা না দেয়া, মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে সংসদ সদস্যের অবমাননাকর মন্তব্য এবং বাঁশখালীতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশে হামলার প্রতিবাদে এ মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়।