রবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ ইং, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ই মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
রবিবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ ইং

ভারতে নৌকাডুবিতে ৪০ জনের প্রাণহানির আশঙ্কা

ভারতে নৌকাডুবিতে ৪০ জনের প্রাণহানির আশঙ্কা

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে গোদাবরী নদীতে একটি নৌকা উল্টে গিয়ে ৪০ জন যাত্রী ডুবে গেছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এর মধ্যে ২০ জন বিয়ে বাড়ির একটি অনুষ্ঠান থেকে ফিরছিলেন। নিখোঁজদের বেশিরভাগই উপজাতি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্থান টাইমস।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, মঙ্গলার বিকাল পাঁচটার দিকে নৌকায় করে প্রায় ৫০ জন যাত্রী কন্দমোদালু উপজাতি পল্লী থেকে গোদাবরী নদী তীরবর্তী রাজামুন্দ্র্যতে ফিরছিলেন। দেবীপটন ব্লকের মন্টুর গ্রাম থেকে একটু দূরে প্রবল বাতাসে নৌকাটি উল্টে যায়।
দু’জন নারী ও এক শিশুসহ ১০ জন যাত্রী সাতরিয়ে নদীর তীরে চলে আসেন। ধারণা করা হচ্ছে, বাকি যাত্রীরা সম্ভবত ডুবে মারা গেছেন এবং তারা কে কোথায় আছেন তা জানা যায় নি। উদ্ধারকাজে অংশ নেয়া স্থানীয় এক ব্যক্তি এসব তথ্য জানান।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, ২০ টি নৌকা, দক্ষ সাতারু ও জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলা ফোর্স (এনডিআরএফ) দিয়ে নিখোঁজদের উদ্ধার তৎপরতা চলছে। তবে তীব্র অন্ধকার ও স্বল্প আলোর কারণে উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী এন চন্দ্রবাবু নাইডু নিখোঁজদের সন্ধানে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়ছেন।

এ ঘটনায় নৌকাটির সংগঠক পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। সাতরিয়ে তীরে আসা যাত্রীদের কয়েকজন জানান, নৌকাটিতে মোট ৫৫ জন যাত্রী ছিল এবং বেশিরভাগ উপজাতি। প্রবল বাতাসে নৌকা চালাতে নিষেধ করলেও চালক যাত্রীদের কথা শোনেননি।

নৌকাডুবির ঘটনার পর এক টুইট বার্তায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলায় নদীতে নৌকো উলটে যাওয়ার ঘটনা দুঃখজনক। দুর্ঘটনাগ্রস্তদের পরিবারের সদস্যদের জন্য সমবেদনা রইল। যারা নিখোঁজ রয়েছেন তাদের সুরক্ষার জন্য প্রার্থনা করি।

সামাজিক মাধ্যমে দুঃখপ্রকাশ করেছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীও। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, এটি খুবই বেদানাদায়ক ঘটনা। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় আধিকারিকদের উদ্ধারকাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।


error: Content is protected !!