বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং
ক্ষিদে তো করোনা ভাইরাস বোঝেনা

শরীয়তপুর লকডাউনে সখিপুর হাটে মানুষে উপচে পড়া ভীড়

শরীয়তপুর লকডাউনে সখিপুর হাটে মানুষে উপচে পড়া ভীড়

শরীয়তপুর লকডাউন ঘোষনার পরেও সখিপুর সাপ্তাহিক হাটে মানুষে উপচে পড়া ভীড় লক্ষ করা গেছে।

শরীয়তপুর গতকাল ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যা থেকে লকডাউন ঘোষনা করেছেন জেলা প্রাশাসক। সেখানে সখিপুর বালার বাজারের সাপ্তাহিক হাটে মানুষে উপচে পড়া ভীড়।

১৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বালার বাজারে গিয়ে দেখা যায়, অন্যান্য দিনের মতোই সাপ্তাহিক এই হাটে ধুমছে চলছে কেনা বেচা। হটে রয়ে প্রচুর মানুষের সমাগম।

কৃষক নিজাম বালা বলেন, আমরা কৃষক, চাষাবাদ করে খাই। আমি জমিতে পিয়াজ রসুন লাগিয়েছি। এগুলো হাটে বিক্রি না করলে আমি কি খেয়ে বাঁচবো। তাই হাটে এসেছি।

জসিম নামের হাটে আসা এক ক্রেতা বলেন, আমাদের ঘরেতো ফ্রীজ নেই, যে স্টোক করে রেখে দিবো। আমার প্রতিদিন বাজার করে খেতে হয়। ক্ষিদে তো করোনা ভাইরাস বোঝেনা।

গ্রামের গরীব কৃষক জনগণ এখনো বোঝেনি করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা। সেই সাথে জীবণ ও জীবিকার তাগিদে সাপ্তাহিক হাটে আসতে বাধ্য হচ্ছেন গ্রামের মানুষ। এমনটাই জানালেন সাপ্তাহিক হাটে আসা অধিকাংশ লোকজন।

এবিষয়ে ভেদরগঞ্জ উপজেলা ভ নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) তানভীর আল নাসীফ বলেন, সকালে শুনেছি ইউপি চেয়ারম্যান চৌকিদার দিয়ে মাইকিং টাইকিং করেছে। আমি মন্ত্রী মহোদয়ের প্রটোকলে এসেছি। আমি এখনি লোক পাঠাচ্ছি।


error: Content is protected !!