মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ ইং, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ ইং

করোনা আক্রান্ত শরীয়তপুরে ১০৩৫ জন, সুস্থ হয়ে ওঠেছে ৭৮৯ জন, বর্তমান রোগির সংখ্যা ২৩৭

করোনা আক্রান্ত শরীয়তপুরে ১০৩৫ জন, সুস্থ হয়ে ওঠেছে ৭৮৯ জন, বর্তমান রোগির সংখ্যা ২৩৭

শরীয়তপুরে নভেল করোনা ভাইরাস শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩৫ জন। আর এ পর্যন্ত স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ ৭৮৯ জনকে সুস্থ ঘোষণা করেছে। জেলায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা মোট ৯ জন। বর্তমানে জেলায় সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ২৩৭ জন।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সিভিল সার্জন অফিসের রোগ নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা মেডিকেল অফিসার ডা. সৈয়দা শাহিনুর নাজিয়া জানান, করোনা ভাইরাস শুরু থেকে শরীয়তপুরে এই পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩৫ জন এবং নতুন ০৪ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৭৮৯ জন। ডাকা থেকে গত ২৪ ঘন্টায় কোভিড-১৯ শনাক্তের নতুন কোন রিপোর্ট আমাদের হাতে আসেনি। এ পর্যন্ত জেলায় মোট সন্দেহভাজন নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ৬ হাজার ৪৭১ টি এবং ফলাফল হাতে এসেছে মোট ৬ হাজার ৩৩৫ জনের।

শরীয়তপুর সদর উপজেলায় এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ৩৭৫ জন, যার মধ্যে মোট সুস্থ হয়েছেন ২৬৮ জন। জাজিরা উপজেলায় মোট আক্রান্ত ১৩১ জন, যার মধ্যে নতুন ০৪ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছে ৯৮ জন। নড়িয়া উপজেলায় মোট আক্রান্ত ১৬০ জন, যার মধ্যে মোট সুস্থ হয়েছে ১২৬ জন। ভেদরগঞ্জে মোট আক্রান্ত ১৩০ জন, যার মধ্যে মোট সুস্থ হয়েছে ১০২ জন। এছাড়া ডামুড্যা উপজেলায় মোট ১০১ জন আক্রান্তের মধ্যে মোট ৮১ জন সুস্থ হয়েছেন ও গোসাইরহাট উপজেলায় মোট ১৩৮ জন আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন মোট ১১৪ জন। এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলার নড়িয়া উপজেলায় ০৫ জন, জাজিরায় ০১ জন, ভেদরগঞ্জে ০২ জন ও ডামুড্যায় ০১ জনসহ মোট ০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জেলায় কোনো করোনা পরীক্ষার ল্যাব নেই। নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে প্রেরণ করে স্বাস্থ্য বিভাগ। যার কারণে পরীক্ষার ফলাফল পেতে বিলম্ব হওয়ায় রোগীদের বিপাকে পড়তে হচ্ছে।

এদিকে মরণঘাতী এ ভাইরাস সম্পর্কে জানলেও বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি না মেনে চলায় জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে।