বৃহস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং

গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন, ১১০ স্বাস্থ্যকর্মী কোয়ারেন্টাইনে

গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন,  ১১০ স্বাস্থ্যকর্মী কোয়ারেন্টাইনে
গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন, ১১০ স্বাস্থ্যকর্মী কোয়ারেন্টাইনে

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ায় হাসপাতালটি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (০৫ মে) শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে ভর্তিকৃত একজন রোগীর শরীরে করোনা শনাক্ত হওয়ায় সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে ওই হাসপাতালটিকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়।

এ সময় হাসপাতালে কর্তব্যরত ১০ চিকিৎসক, ১৩ নার্স ও আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ ১১০ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় শরীয়তপুরে নতুন করে আরো চারজন করনা রোগী শনাক্ত হয়। এ নিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনা রোগে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯ জন।

এদিকে অত্র হাসপাতালে ভর্তিকৃত অন্য ১৩ রোগী নিয়মানুযায়ী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকবেন।

জেলা সিভিল সার্জন এস এম আব্দুল্লাহ আল মুরাদ বলেন, এ পর্যন্ত শরীয়তপুর জেলায় মোট ৮২১ জনের নমুনা সংগৃহীত হয়েছে এবং ৭০৯ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল এসেছে। গত ২৪ ঘন্টায় শরীয়তপুরে নতুন করে চারজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এ নিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনা রোগে আক্রান্ত রোগির সংখ্যা ৩৯ জন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, সোমবার মোট প্রাপ্ত পজিটিভ নতুন রোগী চার (০৪) জন। এরা দুজন পুরুষ এবং দুজন মহিলা। বয়স ২৫ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে। এর মধ্যে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে একজন রোগী করোনা শনাক্ত হওয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে এবং করোনা সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে ১০ জন চিকিৎসক, ১৩ জন নার্স ও কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ ১১০ জনকে হোম কোয়ারান্টিনে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন থাকবে। সকলের নিরাপত্তা ও সেবা নিশ্চিত করার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।


error: Content is protected !!